Tuesday , 15 October 2019
Breaking News

তিন সন্তানকে বাচিয়ে বাবা নিজেই ডুবলো জলে

কলকাতা ব্যুরো প্রতিনিধিঃ

মহানন্দাপাড়ে ইটাহারের গ্রামে এখন করুণ সুর। কান্নার রোল গোটা গ্রামে। পুজোয় উৎসবের আমেজ আর নেই সেখানে।

নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করা মাঝ নদীতে তলিয়ে যাওয়া তার সাথে যোগ হয়েছে নতুন করে বাবা ভুপাল শেঠের আত্মত্যাগ।

বাবা তার তিন ছেলে কে বাচিঁয়ে নিজেই তলিয়ে গেলো জলের গভীরে।

কথায় বলে, ছেলে যতই বড় হোক, বাবা বাবাই থাকে। নানা সময়ে বারবার কথাটা প্রমাণ হয়ে এসেছে। ছেলের জন্যে বাবার অবদানের নতুন গল্পগাঁথা লিখে গেলেন ইটাহারের খরস্রোতা এলাকার বাসিন্দা ভুপাল শেঠ।

মালদহের মহানন্দা নদীতে ভয়ংকর নৌকাডুবিতে তিন ছেলেকে বাঁচিয়ে নিজেই তলিয়ে গেলেন নদীর বুকে। এখনও খোঁজ মেলেনি তাঁর।

জানা গিয়েছে, মাঝ নদীতে আচমকা নৌকা উলটে অন্য যাত্রীদের সঙ্গে তিন ছেলে-সহ বাবা ভুপাল শেঠও নদীতে তলিয়ে যান। কিন্তু ভুবন শেঠ সাঁতরে পাড়ে উঠে দেখেন ছেলেরা জলে হাবুডুবু খাচ্ছে। মুহূর্তে ভরা মহানন্দায় ঝাঁপ দেন তিনি। একে একে তিন ছেলেকে উদ্ধার করলেও নিজেই নিখোঁজ হয়ে যান। প্রায় ২৪ ঘণ্টা তল্লাশি চালিয়েও তাঁর কোনও খোঁজ মেলেনি।

উল্লেখ্যাঃ গতকাল জগন্নাথপুর ঘাট থেকে বিহারের মুকুন্দপুরে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছিলেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। তখনই মহানন্দা নদীতে এই ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনা ঘটে। উদ্ধারকারীরা জানিয়েছেন, একটি নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করার জন্য দুই পারে বহু মানুষ জমা হয়েছিলেন। সন্ধ্যা নাগাদ প্রায় ৭০ জন যাত্রী নিয়ে ওই নৌকাটির বিহারের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। বৃষ্টির কারণে বর্তমানে মহানন্দা নদীর অবস্থা ভয়ংকর। মাঝ নদীতে গিয়ে নৌকাটি হঠাৎই ডুবে যায়।

Share

Leave a Reply

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com